বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকা বাঙালির নিজস্ব মঞ্চ

অপেক্ষার অবসান- শুরু হল করোনার টিকাকরন

16 January, 2021 - 05:48:00 PM

শতাব্দীর অন্যতম ভয়ানক মহামারীর সাথে দীর্ঘ লড়াইয়ের পর প্রতীক্ষার অবসান ঘটল আজ। আশার আলো জাগিয়ে দেশজুড়ে শুরু হল করোনার টিকাকরণ। সকাল সাড়ে দশটার সময় বিশ্বের বৃহত্তম করোনা টিকাকরণ অভিযানের সূচনা করেন প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনে স্বাধীনতা পায় পূর্ণতা

14 January, 2021 - 04:43:00 PM

১৯৭১-এর ডিসেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে হানাদার পাকবাহিনী পিছু হটতে থাকে। একের পর এক মুক্ত হতে থাকে বাংলার ভূখণ্ড। যশোর ও সিলেট মুক্ত হয় ৭ ডিসেম্বর। ১৪ ডিসেম্বর একমাত্র ঢাকা শহর এবং গুটিকয় ছোট এলাকা বাদে সারা বাংলাদেশ তখন শত্রুমুক্ত। তখন ঢাকায় মুক্তিবাহিনীর সঙ্গে যুদ্ধ এড়ানোর জন্য পাকিস্তান বাহিনীকে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়। মার্কিন সপ্তম নৌবহর আগমনের সংবাদে পাকবাহিনী কিছুটা উৎসাহবোধ করে। আত্মসমর্পণে টালবাহানা করতে থাকে। একই সময় ভারত মহাসাগরে অবস্থিত সোভিয়েতের ২০তম নৌবহর মার্কিন ৭ম নৌবহরের পিছু নেয়। বেতার ও টিভিতে জেনারেল মানেকশর ঘনঘন আত্মসমর্পণের আহ্বানে পাকিস্তানী সৈন্য ও অফিসার আতঙ্কগ্রস্ত হয়।

আরও পড়ুন

শঠে, শাঠ্যাং- তাতেও সেরা আমাদের স্বামীজী

13 January, 2021 - 11:40:00 AM

ছাত্র ক্লাসে পড়াচ্ছিলেন। তিনি এক ছাত্রকে জিজ্ঞসা করলেন, 'ধর তুমি রাস্তা দিয়ে যেতে যেতে একটি প্যাকেট কুড়িয়ে পেলে। তাঁর মধ্যে আবার দুটি ব্যাগ। একটি ব্যাগে আছে 'প্রজ্ঞা'। অন্যটিতে 'টাকা'। তুমি কোনটা নেবে?' ছাত্রটি বলল, 'টাকা ভরা ব্যাগটি।'

আরও পড়ুন

আমার একাত্তর'-বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণা

12 January, 2021 - 04:45:00 PM

বাংলাদেশের স্বাধীনতাকামী জনগণ ১৯৭১ সালে এক রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীকে পরাস্ত করে ছিনিয়ে এনেছিল স্বাধীনতা। দেশমাতৃকাকে পরাধীনতার শৃঙ্খলমুক্ত করার জন্য পুরুষের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াইতে অংশ নিয়েছিল সে দেশের নারীরাও। মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকসেনা এবং তাদের সহযোগীদের বর্বর আক্রমনে লাঞ্ছিত, নিপীড়ত এবং নিহত হয়েছিলেন লক্ষ লক্ষ নারী। তবুও তাঁরা তাঁদের অদম্য ইচ্ছাশক্তি, সাহসিকতা এবং দেশকে পরাধীনতার শিকল থেকে মুক্ত করার অঙ্গীকার নিয়ে রণাঙ্গনে দাঁড়িয়েও বিপুল বিক্রমের সঙ্গে লড়েছেন।

আরও পড়ুন

ম্যাকআউটের বন্ধন - অঙ্ক মানে আতঙ্ক নয়

12 January, 2021 - 03:20:00 PM

অঙ্ক থেকে আতঙ্ক? নাকি আতঙ্ক শব্দ থেকেই অঙ্কের সৃষ্টি? - প্রাথমিক স্তর থেকে ছাত্র-ছাত্রীদের বিভিন্ন বিষয়ের সঙ্গে সঙ্গে অঙ্ক শিখতে হয়। কিন্তু অঙ্কের নাম শুনেই ছোট ছোট মুখগুলো শুকিয়ে যায়। স্কুল কলেজে অঙ্কের শিক্ষকদের দেখে বেশিরভাগ ছাত্র-ছাত্রীরা ভীতসন্ত্রস্ত থাকে। অঙ্ক মানে পড়ুয়াদের কাছে ভয়ের অন্ত নেই। সেই ভয় কাটাতেই উদ্যোগী হয়েছে "মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়"। "ম্যাকআউটের বন্ধন" -অঙ্ক মানে আতঙ্ক নয় - এই শীর্ষক একটি আলোচনা সভার আয়োজন করেছিল "মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়"।

আরও পড়ুন

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ও তথ্যচিত্রের প্রকাশ

12 January, 2021 - 01:33:00 PM

কলকাতায় সাড়ম্বরে উদযাপিত হল বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস এবং একটি তথ্যচিত্র প্রকাশিত হল।

আরও পড়ুন

হাতে হাতা-খুন্তি, মশলা বাটছেন নিজেই

12 January, 2021 - 12:25:00 PM

নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশন বিদ্যালয়ে যখন ভর্তি হতে গেলাম তখন ঘনিষ্ঠ আত্মীয়দের অনেকেই দুঃখ পেয়েছিলেন। হায়রে ছেলেটাকে এবার বুঝি নিরামিষ খেয়েই কাটাতে হবে! কিন্তু নরেন্দ্রপুরের হস্টেলে গিয়ে দেখলাম মাছ তো বটেই, ডিম আর মাংসও চলে সেখানে। দুবেলাই আমিষ। সে যুগে (১৯৬৯ সাল) মুরগীর মাংস জুটত কালেভদ্রে। তখন মাংস মানেই পাঁঠা বা খাসি। সপ্তাহে একদিন মাত্র নিরামিষ। রবিবার। সেদিন বিকেলে গার্জেন আসবেন, সঙ্গে খাবারটাবার আনবেন, তাই পেটকে খানিকটা বিশ্রাম দেওয়া।

আরও পড়ুন

তিনি বিপ্লবীদেরও মা

5 January, 2021 - 12:38:00 PM

ঠাকুর শ্রী শ্রী রামকৃষ্ণের ভবিষ্যৎবাণী ফের সত্যি হল। তাঁর সহধর্মিনীকে ঠাকুর একবার বলেছিলেন, 'পরে দেখবে, এত ছেলে তোমায় মা বলে ডাকবে, তোমার সামলানো ভার হয়ে উঠবে' (সূত্র: তদেব, পৃষ্ঠা-১০০)। সিস্টার নিবেদিতা এই ভবিষ্যৎবাণী মিলে যাওয়ার প্রত্যক্ষদর্শী। ১৯০৯ সালে বিশেষ করে আলিপুর বোমা মামলার রায় প্রকাশের পরে বাগবাজারে মায়ের বাড়িতে যেন বিপ্লবীদের ঢল নামল। সবাই মা-য়ের আশীর্বাদ চান। এ সময় নিবেদিতা একদিন মা কে বললেন, 'মা ঠাকুর বলেছিলেন, কালে আপনি বহু সন্তান লাভ করবেন। মনে হয় তার সময় অতি নিকট। সমগ্র ভারতবর্ষই আপনার সন্তান।'

আরও পড়ুন

১৬ ডিসেম্বর-নূতন সূর্যোদয়

4 January, 2021 - 04:55:00 PM

৪৯ তম বিজয় দিবসের এই দিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয় চার নেতা, ত্রিশ লক্ষ শহিদ, তিন লক্ষ নির্জাতিত মা বোনের প্রতি রইলো সালাম ও শ্রদ্ধা।

আরও পড়ুন

বিদায়, স্বাগত

4 January, 2021 - 02:23:00 PM

যথারীতি 2020 এসেছিল আনন্দে- উদ্দীপনায়- উন্মাদনায়- নতুন আশায়। কিন্তু দু-এক মাস যেতে না যেতেই ছন্দপতন। সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ল এক মারণ ভাইরাস। কোভিডের আক্রমণে চেনা জীবন গেল হারিয়ে। ভয়ে আতঙ্কে মানুষ দিশেহারা। শুরু হয়ে গেল লকডাউন। সকলেই গৃহবন্দী। মাস্ক, সানিটাইজার আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের সঙ্গী হল। মানুষে মানুষে দেখা- সাক্ষাৎ বন্ধ -- সোশ্যাল distancing ।

আরও পড়ুন

SUBSCRIBE TO NEWSLETTER

SUSCRIBETE