বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকা বাঙালির নিজস্ব মঞ্চ

ছেলেরা সাবধান!!

20 August, 2019 - 02:18:00 PM

আমার খুব ছোট বয়সে বিয়ে হয়েছিল, মা বিয়ে দিতে চায়নি, তাই শিখিয়েও দেয়নি কিভাবে শ্বশুর বাড়ীতে চলতে হবে । আর আমিও ছিলাম মায়ের আদরের মেয়ে এবং কিছুটা জিদ্দী, না না ভীষন জিদ্দী মেয়ে ছিলাম। তাই বিয়ে হয়ে আসবার পর শ্বশুর বাড়ীতে এসে যখন বুঝেছিলাম যে এটা আমার বাড়ী না, এখানে জীদ দেখানো যাবেনা, নিজের ইচ্ছা বলতে কিছু থাকতে পারবে না, তাই বুদ্ধি খরচ করে বর কে বলেছিলাম, “আমার মা তো আমাকে শ্বশুর বাড়ীতে কিভাবে চলতে হবে তা শিখিয়ে দেয়নি তাই আম্মাকে ( শ্বাশুরী মা) বলো আমাকে যেন guide করে। আমি শিখে নিব তাড়াতাড়ি। আবার এও বলেছিলাম আমি কিন্ত খুব quick learner।

read more

বাইশে শ্রাবণ

10 August, 2019 - 01:39:00 PM

পৃথিবীর এক শ্রেষ্ঠ স্রষ্টার মৃত্যুর দিনে আমরা শুধু তাঁর জন্য শোক করার কথা যদি ভাবি, তবে তাঁর প্রতি অবিচার করা হবে। তিনি তাঁর জীবন আর সৃষ্টিকে এক অভাবিত পূর্ণতায় পৌঁছে দিয়ে বিদায় নিয়েছিলেন, সেই পূর্ণতাকে আমরা প্রণাম করি, সেই পূর্ণতা দিয়ে আমরা নিজেদের জীবনকে সমৃদ্ধ করার কথা ভাবি।

read more

My Dream

6 August, 2019 - 03:29:00 PM

Have you ever been Walking on the moon Holding the hands Of your dream man?

read more

পুরানো কলকাতার চালচিত্র

2 August, 2019 - 05:18:00 PM

বাংলা চলচ্চিত্র বা বাংলা সিনেমা ১৮৯০ সালে ভারতের কলকাতায় বায়োস্কোপ নামে শুরু হয়েছিল। ১৮৯৮ খ্রিষ্টাব্দের কলকাতায় বাঙালিদের মধ্যে প্রথম বায়োস্কোপ কোম্পানি গঠন করেন মানিকগঞ্জ জেলার বগজুরী গ্রামের হীরালাল সেন (১৮৬৬-১৯১৭)। তাঁর প্রতিষ্ঠিত কোম্পানির নাম দ্য রয়েল বায়োস্কোপ কোম্পানি। তিনিই ছিলেন অবিভক্ত বাংলার প্রথম চলচ্চিত্র নির্মাতা।

read more

চেনা গন্ধটা

1 August, 2019 - 02:11:00 AM

একঘেয়ে অফিসের টিপটিপ মাথাব্যথায় কফির গন্ধটা যেমন চনমনে সারা মনে,

read more

ধারাবাহিক উপন্যাস: টিউশন (দ্বাদশ পর্ব)

27 July, 2019 - 02:00:00 PM

--"অরিন্দমের যখন দেড় বছর বয়স, তখন আমার সঙ্গে অরুণাভর বিয়ে হয়। ওর বাবা মারা গিয়েছিলেন বেশ অল্প বয়সেই। আর ওর মা, মানে আমার শাশুড়িমা ভীষণই প্রগতিশীল মহিলা। নিজে বেথুন কলেজের অধ্যক্ষা ছিলেন। প্রেসিডেন্সির ছাত্রী। বোটানিতে ডক্টরেট। অরিন্দমকে কখনও বুঝতে দেননি, উনি ওর নিজের ঠাকুমা নন।

read more

ধারাবাহিক উপন্যাস: টিউশন (একাদশ পর্ব)

20 July, 2019 - 02:23:00 AM

হোস্টেলে ফিরেই অর্ণবের মায়ের ফোন। ফোনটা রিসিভ করতেই, ওর মা বলে উঠলো, "অর্ণব আমাকে বলেছে। কিন্তু, তোমার নিজের পড়াশোনার কোনও ক্ষতি হবে না তো?" অরিত্র বললো, "না। দূরে হলে অসুবিধা হত। আমি শনিবার সকালে পড়াতে পারি। তবে শুধু ফিজিক্স। কেমিস্ট্রি পারবো না। তাহলে আমার একটু অসুবিধা হয়ে যাবে।"

read more

ধারাবাহিক উপন্যাস: টিউশন (দশম পর্ব)

12 July, 2019 - 06:00:00 AM

সকাল সাড়ে দশটা থেকে টানা ক্লাস চললো আড়াইটে পর্যন্ত। প্রথমে রিয়েল অ্যানালিসিস, তারপর কমপ্লেক্স অ্যানালিসিস, শেষে ডিফারেনশিয়াল জিওমেট্রি। কমপ্লেক্স অ্যানালিসিস পার্টটা ওদের প্রিয় ডক্টর কল্যাণ সেনের ক্লাস। ক্লাস শেষ হতেই, অরিত্র আর অনন্যা, দুজনেই ছুটলো ডক্টর সেনের কাছে।

read more

ধারাবাহিক উপন্যাস: টিউশন (নবম পর্ব)

6 July, 2019 - 12:15:00 PM

--ডোর বেল বাজাতেই, অনন্যা দরজা খুলে দিয়ে বললো, "বারান্দায় এসো। সেই বিকেল থেকে অপেক্ষা করে আছি, একটা ফোন পর্যন্ত করোনি। চলো, মা তোমার খাবার করে রেখে গিয়েছে। এখন খাবে, না পরে দেব?" --"ঘুম থেকে উঠেই তো চলে এলাম তোমার কাছে। তাই আর ফোন করিনি। বেঙ্গল আম্বুজা অবধি এলো অটোটা। তারপর হেঁটে এলাম। দুপুরবেলা জানো, মাকে ফোন করেছিলাম। খুব খুশি হয় আমি বা দাদা ফোন করলে। দাদা এই মাসের শেষে নয়দা চলে যাচ্ছে, একটা নতুন কোম্পানিতে চাকরি নিয়ে।"

read more

ধারাবাহিক উপন্যাস: টিউশন (অষ্টম পর্ব)

29 June, 2019 - 12:09:00 PM

অনন্যার ফোন এলো যখন, দুচোখের পাতায় ঘুম ঢেকে দিয়েছে। বালিশের পাশেই ফোনটা রাখা থাকে ওর। কোনওমতে ফোনটা ধরতেই ওপাশ থেকে অনন্যা বলে উঠলো, "একটু দেরি হয়ে গেল ফোন করতে। বাবা ফোন করেছিল। আমার কিছু লাগবে কি না জিজ্ঞেস করছিল। আমি না বলে দিয়েছি। শুধু বলেছি, ভাল মেনস্ পারফিউম যেন নিয়ে আসে। আমার কথা শুনে একটু অবাকই হল মনে হয়।"

read more